কুরআন অ’বমাননা করলেই মৃ’ত্যুদণ্ডের শা’স্তি ঘোষণা করল না’ইজেরিয়া

নাইজেরিয়ায় মোট জনগণের অর্ধেক হলো মুসলিম আর ওই দেশটির ৪০% হল খ্রিস্টান ধর্মালম্বী এবং ১০% হল অন্যান্য ধর্মাবলম্বী মানুষ। উল্লেখ্য যে নাইজেরিয়ার মোট জনসংখ্যা প্রায় ১৯ কোটি।

দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় জাম ভাড়া রাজ্যের কর্মকর্তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছেন যে নাইজেরিয়ায় কেউ যদি কোরআন অবমাননা করেন তাহলে তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করা হবে। ওখানকার গভর্নর বালু মুহাম্মদ মেটাওয়াল বলেন “কুরআনুল কারীম মুসলিম উম্মাহর জন্য পবিত্র ধর্মগ্রন্থ”

সুতরাং এই পবিত্র ধর্মগ্রন্থ নিয়ে কেউ যদি অবমাননা করেন অর্থাৎ কটূক্তিমূলক কোন কথা বলে থাকেন তাহলে তাকে সর্বোচ্চ শাস্তি মৃত্যুদণ্ড দিবেন বলে ঘোষণা করেছেন দেশটির উত্তরাঞ্চলীয় রাজ্যের কর্মকর্তারা।

মিসওয়াক করার ফজিলত

??.السلام عليكم ورحمة الله وبركاته.??

??➖➖মেসওয়াক➖➖??

◾____মেসওয়াক করে যে ব্যক্তি ১.রাকাত নামায পড়ে ৭০. রাকাত নামাযের সওওয়াব পাওয়াই যায়।
____আর সবচেয়ে বড় কথা হচ্ছে মৃর্তুর সময় তার কালেমা নসীব হবে।
____অটুমেটিকলি কালেমা বের হতে থাকবে তার মুখ দিয়ে!! সুগন্ধি আসতে থাকবে আতরের ন্যায়।
____কারন মেসওয়াক কে শয়তান ভয় পায়।
◾হযরত আয়শা (রাঃ) বলেন◾

◾___আমি তার আগ্রহ বুঝতে পেরে তার অনুমতি নিয়ে মিসওয়াক টি চিবিয়ে নরম করে তাকে দিলাম!!
____তখন তিনি সুন্দরভাবে মেসওয়াক করলেন ও পাশে রাকা পাত্রে হাত ডুবিয়ে (কুলি সহ) মুখ দৌত করলেন!!
____এ সময়ে তিনি বলতে তাকেন আল্লাহ্ ব্যাতিত কোন সত্য- ইলাহ নেই।
◾___নিশ্চই মৃত্যুর রয়েছে কঠিন যযন্ত্রনা সমূহ।
____এমন সময় তিনি ঘরের ছাদের দিকে তাকিয়ে হাত কিংবা আঙ্গুল উঁচিয়ে বলতে তাকলেন..!!
____হে আল্লাহ্! নবীগন…ছিদ্দিক গন… শহীদ গন এবং নেক্কার ব্যক্তিগন, যাদের তুমি পুরষ্কিত করেছো,,
____আমাকে তাদেরর সাথী করে নাও।
____হে_আল্লাহ্! তুমি আমাকে ক্ষমা করো ও দয়া কর ,এবং আমাকে সর্বোচ্চ বন্ধুর সাথে মিলিত কর,
____আল্লাহুম্মার যুকনি আলা, হে আল্লাহ! আমার সর্বোচ্চ বন্ধু…!!
◾__আয়শা (রাঃ) বলেন__◾

◾___শেষের কথাটি তিনি তিনবার বললেন। অতঃপর তকে এলিয়ে পড়লো, দৃষ্টি নিকর হয়ে গেল…!
____তিনি সর্বোচ্চ বন্ধুর সাথে মিলিত হলেন।
সুবহান?আল্লাহ্‌
◾?তিনি আর কেহ নন?তিনি হলেন আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ)?
© সংগ্রহীত

▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂▂

★ আমার পরবর্তী পোষ্ট গুলো আপনার পড়ার ইচ্ছে হলে অবশ্যই আমার পেজে Like দিয়ে আমাকে #Follow us করে রাখবেন #ইনশাআল্লাহ ভালো কিছু উপহার দেয়ার চেষ্টা করবো।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট: হিজাবি প্রত্যেক মুসলিম নারীকে আমি সম্মান করি

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট বলেন গত কয়েক বছরে বিশ্বে অভিবাসন স্রোতের কারণে ফ্রান্সের ব্যাপক মুসলিমের সংখ্যা বৃদ্ধি পাচ্ছে। বর্তমানে ফ্রান্সে মুসলিম নাগরিকদের সংখ্যা সাড়ে চার হতে ৬ মিলিয়ন এর কাছাকাছি।

এ সময় ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট আরো বলেন সামাজিক অখন্ডতা বজায় রাখতে আমাদের সবাইকে ধর্মীয় স্বাধীনতা বজায় রাখার জন্য কাজ করতে হবে। এসময় তিনি আরও বলেন আমি হিজাব পরিহিতা সকল নারীকে সম্মান করি।

তিনি আরো বলেন আমাদের ফ্রান্সে ইসলাম ধর্ম অনেকটাই নতুন তাই অনেকে এটাকে ভয় পায়, তাই আমি তাদের উদ্দেশ্যে বলবো প্রত্যেককেই তাদের বিশ্বাস এর স্বাধীনতা কে সম্মান করুন।

হিজাব পরিধান সম্পর্কে প্রশ্ন করলে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট বলেন আমি প্রত্যেক হিজাবী নারীকে সম্মান করি এবং সবাইকে সম্মান করতে হবে। আমি হিজাব নিষিদ্ধকরণের পক্ষপাতিত্ব নই।

তিনি আরো বলেন ইসলামে চরমপন্থা না থাকা সত্বেও চরমপন্থী ও উগ্র স্রোতের কারণেই ইসলাম সম্পর্কে মানুষের মনে ভয় ভীতি তৈরি হচ্ছে প্রতিনিয়ত।

ক্যাসিনো-কাণ্ডে ধরা পড়া সবাই যুবদল-শিবির: এইচ টি ইমাম

ধানমন্ডির কার্যালয় এ দলের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির সভার আগে এক সংবাদ সম্মেলনে এইচ টি ইমাম অর্থাৎ প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা বলেন যারা ক্যাসিনো ব্যবসা তে জড়িত তারা সবাই আগে যুবদল, বিএনপি, জামাত, শিবির করত। আজ রোববার ২২ সেপ্টেম্বর এইচটি ইমাম এ কথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম বলেন বর্তমানে যারা ক্যাসিনো ব্যবসায়ী হিসেবে ধরা পড়েছে তারা সবাই অনুপ্রবেশকারী। আমরা দীর্ঘদিন ধরে অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করার জন্য দাবি করছিলাম। কারণ আমরা দেখতে পাচ্ছিলাম যে তারা আমাদের আওয়ামী লীগের অনেক ক্ষতি করছিল। তিনি বলেন ক্যাসিনো ব্যবসায়ী প্রায় প্রত্যেকেই আগে জামাত-শিবির ও বিএনপি করতো পরে আওয়ামীলীগে যোগ দিয়ে এসব সুবিধা গ্রহণ করেছে।

এইচটি ইমাম কে প্রশ্ন করা হয়েছিল যে এতদিন মদদ দিয়ে আসছে তাদের কি বিচার হবে না?? উত্তরে তিনি বলেন তাদেরকে রিমান্ডে দেওয়া হয়েছে এবং অবশ্যই তথ্য পাওয়া যাবে। সেইসব তথ্যের উপর ভিত্তি করেই তাদের বিচার করা হবে।

এইচটি ইমাম আরো বলেন আমাদের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতিমধ্যে বলে দিয়েছেন এই ব্যবসার সাথে জড়িত হোক না কেন তাকে ছাড় দেয়া হবে না। সে যে দলেরই হোক না কেন। আমরা পরিচ্ছন্ন একটি রাজনৈতিক দল চাই।

এ সময় সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন আ.লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, উপপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম আমীন, উপকমিটির সদস্য ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, সংসদ সদস্য শেখ সারহান নাসের তন্ময়, প্রধানমন্ত্রীর সহকারী আশরাফ সিদ্দিকী বিটু, আনিস আহম্মেদ প্রমুখ !

বাংলাদেশী শিক্ষার্থীদের জন্য ফুল-ফ্রি স্কলারশিপ তুরস্ক সরকারের

তুরস্কের সরকার প্রতিবছর বাংলাদেশের শিক্ষার্থী দের জন্য স্নাতক, স্নাতকোত্তর ও পিএইচডি অধ্যায়নের জন্য ফুল ফ্রি স্কলারশিপ এর ব্যবস্থা করেন। আর সেই ধারা বজায় রেখে প্রতি বছরের ন্যায় এবারও তুরস্কের সরকার বাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের জন্য ফুল ফ্রি স্কলারশিপ দিচ্ছেন।

২০১৯-২০২০ শিক্ষার্থীর জন্য সুখবর এইযে এই সুযোগটি তারা পাচ্ছেন বর্তমানে। এ আবেদন প্রক্রিয়া চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারি থেকে শুরু হয়েছে এবং এই আবেদনের শেষ সুযোগ আগামী বুধবার ২২ এ অক্টোবর।

তো চলুন জেনে নেওয়া যাক কী কী সুবিধা পাবেন যারা এই স্কলারশিপ পাবে

* সরকারি ডর্মিটরিতে বিনামূল্যে থাকার ব্যবস্থা
* হেল্থ ইনস্যুরেন্স
* সম্পূর্ণ টিউশন ফি
* মাসিক খরচ : অনার্স ৭০০ লিরা, মাস্টার্স ৯৫০ লিরা, পিএইচডি ১৪০০ লিরা
* আসল কোর্স শুরু হওয়ার আগে একবছর ফ্রি তুর্কি ভাষার কোর্স
* আসা-যাওয়ার বিমান টিকেট

তো এবার জেনে নেয়া যাক কি যোগ্যতা লাগবে
* গড় নম্বর ৭০%; তবে মেডিকেল ছাত্রদের ক্ষেত্রে ৯০%
* তুরস্কের নাগরিক হতে পারবেন না।
*তুরষ্কের কোন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি হননি আগে।

জেনে বয়স:
*রিসার্চ প্রোগ্রামের জন্য আবেদন করতে বয়স হতে হবে ৪৫ বছরের নি
*স্নাতকোত্তর জন্য আবেদন করতে বয়স হতে হবে ৩০ বছরের নিচে।
*স্নাতকের জন্য আবেদন করতে বয়স হতে হবে ২১ বছরের নিচে।
*পিএইচডির জন্য আবেদন করতে বয়স হতে হবে ৩৫ বছরের নিচে।

ভারতে উপযুক্ত নেতা নেই বলেই মোদি আজ ভারতের প্রধানমন্ত্রী : নোবেলজয়ী অভিজিৎ

নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অভিজিৎ বিনায়ক ব্যানার্জি এর একটি কথা বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল। তিনি ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে এক প্রকার অযোগ্য বলেই দাবি করে ফেলেছেন। তার ভাষ্য মতে ভারতে কোনো জনপ্রিয় এবং যোগ্য নেতা নেই বলেই ভারতের প্রধানমতি নরেন্দ্র মোদী।

শনিবার (১৯ অক্টোবর) গণমাধ্যমকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, সরকারি নীতির ফলে নির্বাচনে জয় হয়, এমন তত্ত্ব সত্য নয়। তবে মোদির জনপ্রিয়তার জন্য তাকে কৃতিত্ব দিতেই হবে। মোদির জয় মানেই এটা ঠিক নয় যে, তার সব সিদ্ধান্তই সঠিক।

জেনে রাখো ভালো যে মোদী সরকার এর নেতারা আগে থেকেই ভালো চোখে দেখতো না এই নোবেল জয়ী অভিজিৎকে। কারণ মোদির অর্থনৈতিক পরিকল্পনা ‘মোদিনোমিক্স’র সমালোচনা ও কংগ্রেস সম্পৃক্ততার সাথে জড়িত থাকা। তাই জন্যে নোবেল জয় করে সবাইকে গর্বিত করলেও এই সরকার কে খুশি করতে পারেন নাই অভিজিৎ।

তবে আমরা সোশ্যাল মিডিয়া তে চোখ বুলালেই দেখতে পাবো নরেদ্র মোদী অভিজিৎকে নোবেল পাওয়ার পর টুইট করে অভিনন্দন জানিয়েছে কিন্তু তার নেতা কর্মীরা ঠিকই তাদের ক্ষোভ চাপা রাখতে পারেন নি।

রাজধানীতে ছাত্র শিবির এর ক্ষোভ ! ভোলার এমন নিন্দনীয় ঘটনার জন্যে

 

 

ইসলাম অ’বমাননার প্রতিবাদে ভোলায় আয়োজিত সাধারণ জনতার বি’ক্ষোভ সমাবেশে পু’লিশের হা’মলার প্রতিবাদে এবং ইসলাম অ’বমাননাকারীর শা’স্তির দাবীতে বি’ক্ষোভ মিছিল কৱে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির ঢাকা মহানগৱী পশ্চিম শাখা।

এর আগে গত রাতে ইসলামি ছাত্রশিবিরে কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সেক্রেটারি জেনারেল এক বিবৃতিতে বলেন

ইসলাম অ’বমাননার প্রতিবাদে আয়োজিত ভোলার বোরহানউদ্দিন উপজেলায় সাধারণ মুসল্লিদের শান্তিপূর্ণ সমাবেশে পু’লিশ কর্তৃক হা’মলা চালিয়ে কমপক্ষে ৪ জনকে হ’ত্যার তীব্র নিন্দা ও প্র’তিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির।

এক যৌথ প্র’তিবাদ বার্তায় ছাত্রশিবিরের কেন্দ্রীয় সভাপতি ড. মোবারক হোসাইন ও সেক্রেটারি জেনারেল সিরাজুল ইসলাম বলেন, পুলিশের ব’র্বরতা ও নৃ’শংসতা সী’মা ছাড়িয়ে গেছে।

একটি ঘটনাকে কেন্দ্র করে পুলিশ যে হত্যাকান্ড চালালো সেটা কোনো ভাবেই মেনে নেয়া সম্ভব না। এর বিচার আমরা সবাই চাই।

একটি হিন্দু ছেলের ফেইসবুক স্ট্যাটাস কে কেন্দ্র করে এই ঘটনা টা ঘটেছে আমাদের দেশে। ভোলাতে একটি হিন্দু ছেলে আমাদের প্রিয় নবী হজরত মোহাম্মদ (স) এবং আল্লাহ তায়ালা কে কটাক্ষ করে একটি ছেলেকে মেসেজ দিয়েছিলো এবং সেটি ভাইরাল হওয়ার পর যখন ভোলাতে প্রতিবাদ করা হয় ঠিক তখন পুলিশ এর সাথে প্রতিবাদী জনগণ এর একটি ঝামেলা হয় এবং সেখানে পুলিশ গুলি বর্ষণ করে সাধারণ জনতার ওপর।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ৪ জন নিহত এবং শতাধিক মানুষ আহত হয়েছে বলে জানা গেছে।

পুলিশ এর এই নিন্দনীয় ঘটনাকে কোনো ভাবেই মেনে নেয়া যাচ্ছে না। বিশেষ করে মুসলিম প্রধান দেশে এমন ঘটনাতো কোনো ভাবেই মেনে নেয়া যাবে না বা যাচ্ছে ও না।

সাকিব-তামিমদের ধর্মঘট, দাবি না মানলে সবধরনের ক্রিকেট বন্ধ!

ক্রিকেটারদের ১১দফা দাবি না মানলে সবধরনের ক্রিকেটীয় কার্যক্রম বন্ধ রাখার ঘোষনা। বাংলাদেশ ক্রিকেটারদের এই দাবি শীঘ্রই না মানলে ভারত-বাংলাদেশ সিরিজ অনিশ্চিত।

বাংলাদেশ ক্রিকেট খেলোয়াড়দের যত দাবি-

• প্রথমে ২৭ টি প্রথম শ্রেণির সেঞ্চুরির মালিক নাইম ইসলাম কথা বলেন। তিনি জানান ক্রিকেটাররা নির্ধারণ করবেন কোয়াবের দায়িত্বভার কাদের কাঁধে থাকবে।
• মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ বলেন প্রিমিয়ার লিগ আগে যেমন ছিলো সেভাবে যেনো হয়। পারিশ্রমিকের মানদণ্ড বেধে দেওয়া ও বিভিন্ন লিমিটেশন দিয়ে দেওয়াটা মানছেন না কেউই।
• মুশফিকুর রহিম বলেন আগের নিয়মে বিপিএল করতে হবে। লোকাল ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক বাড়াতে হবে বিদেশী ক্রিকেটারদের মানদণ্ড বিবেচনায় এনে। তিনি বলেন বিশ্বের অন্যান্য ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে প্লেয়াররা নিজে নিজের ক্যাটাগরি নির্ধারণ করতে পারে। বিপিএলেও তেমন করতে হবে।
• সাকিব আল হাসান বলেন প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ম্য্যাচ ফি ১ লাখ টাকা করতে হবে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটারদের বেতন ৫০ শতাংশ বাড়াতে হবে। ১২ মাস কোচ, ট্রেইনার ইত্যাদি নিশ্চিত করতে হবে। আগামী মৌসুমের আগেই এটা নিশ্চিত করতে বলেন তিনি। এবং এটা সব বিভাগে আলাদা আলাদা হতে হবে। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে মানসম্মত বল দিতে হবে।
• ডেইলি অ্যালাওয়েন্স ১৫০০ টাকাতে সন্তুষ্ট নয় ক্রিকেটাররা। সেটা বাড়ানোর দাবি করেছেন ক্রিকেটাররা।
• ক্রিকেটারদের যাতায়তের ক্ষেত্রে প্লেন ফেয়ার দাবি করা হয়েছে।
• হোটেলে জিম ও সুইমিংপুল নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।
• ক্রিকেটাররা যে বাসে যায় সেটা ভালো মানের করার দাবি।
• এনামুল হক জুনিয়র বলেন জাতীয় দলের চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটার সংখ্যা বাড়াতে হবে। বিশ্বের অন্যান্য ক্রিকেট খেলুড়ে দলের তুলনায় বাংলাদেশে অনেক কম উল্লেখ করে তিনি চুক্তিবদ্ধ ক্রিকেটারের সংখ্যা ৩০ করার দাবি রাখেন। তিন বছর ধরে বেতন বাড়ানো হয়না উল্লেখ করে তিনি বেতন বাড়ানোর দাবি করেন।
• তামিম ইকবাল বলেন ক্রিকেটারদের সম্মানই শুধু নয়, ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট সবার সম্মান দিতে হবে। সারাদিন কাজ করে যাওয়া গ্রাউন্ডসম্যানরা মাস শেষে ৫০০০ এর মতো টাকা পায় উল্লেখ করে তিনি বলেন তাঁদের মুজুরি বাড়াতে হবে। দাবিতে তিনি বলেন, স্থানীয় কোচদের সম্মানী বাড়াতে হবে। আম্পায়ারদের বিরুদ্ধে অনেক সমালোচনা হয় উল্লেখ করে তিনি বলেন তাদের জীবিকা নির্বাহের জন্য যথাযথ সম্মানী দিতে হবে। ফিজিও, ট্রেইনারদের ক্ষেত্রেও একই দাবি তার। সব ক্ষেত্রেই বাংলাদেশিদের মূল্যায়ন করার কথা আসে তার দাবিতে।

কেন রক্তাক্ত ভোলা, ঠিক কি কারণে পুলিশের আক্রমণ?

ভোলায় বোরহানউদ্দিনে এক মর্মান্তিক ঘটনার সাক্ষী হলো মুসলিম বিশ্ব। এতদিন আমরা কাশ্মীরের অত্যাচারের চিত্র দেখতাম, ফিলিস্তিনের করুন কাহিনী চিত্র দেখতাম, কিন্তু আজ বিশ্ব দেখল বাংলাদেশী মুসলমানদের উপর হামলার এক মর্মান্তিক ঘটনা।

ফেসবুকে শুভ নামের এক হিন্দু যুবকের পোস্টকে কেন্দ্র করে এই ঘটনা ঘটে। বিপ্লব চন্দ্র শুভ নামের যুবক ইসলামকে চরম অবমাননা করে। তার স্ট্যাটাসকে কেন্দ্র করে ভোলার মুসলমানরা প্রতিবাদে রাস্তায় আন্দোলনে নামে। এর পরিপ্রেক্ষিতে পুলিশ আন্দোলনকারীদের উপর গুলি চালায়। এ ঘটনায় নিহত সংখ্যা ৫ এবং আহত হয় শতাধিক মুসলমান।

ভোলার এই মর্মান্তিক ঘটনা নিয়ে  একটি ভিডিও চিত্র_

https://youtu.be/kM6bxHOLOeA

 

রাশেদ খান মেননকে যেই অগ্নি ধরা বাঁশ দিলেন তুহিন মালিক

Dr. Tuhin Malik একজন সাহসী ব্যাক্তির নাম। তিনি কখনো সত্য বলা থেকে বিরত থাকেন না। সে যেই হোক যদি সে অন্যায় করে তাহলে তার বিরুদ্ধে কেউ কথা না বললেও

Dr. Tuhin Malik কথা বলবেনই। ঠিক তার ধারাবাহিকতায় এবার তিনি মুখ খুললেন রাশেদ খান মেনন এর বিপক্ষে..Dr. Tuhin Malik রাশেদ খান মেনন এর বিপক্ষে এক ফেইসবুক স্টেটাস দেন। চলুন সেটা পরে নেয়া যাক

‘সূর্য পূর্বদিকে উঠে’- এই দ্রুবসত্যটিও যদি হাছান মাহমুদের মুখ থেকে কেউ শুনে, তারপরও তাকে সত্যবাদী বলে কেউ বিশ্বাস করবে না। তেমনিভাবে মেননরা যতই মহাসত্য কথা বলুক না কেন, তাদের জন্য মানুষের মনে বিন্দুমাত্র কোন সহানুভূতি নাই। এটাই হচ্ছে জালিমের করুণ পরিনতি। আর জালিমের জন্য রয়েছে শুধুমাত্র মানুষের ঘৃণা ও অভিশাপ। হায়, যদি বড় জালিমরা তা উপলব্ধি করতো!